দ্রুততম ‘সেঞ্চুরি’-র নজির! আরও এক লজ্জা বাংলাদেশের ক্রিকেটে

২২ বছর ধরে টেস্ট খেলছে বাংলাদেশ। এখনও পর্যন্ত ১৩৪টি পাঁচ দিনের ম্যাচ খেলেছে তারা। এর মধ্যে ১০০টি ম্যাচেই হারতে হল বাংলাদেশকে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টে ১০ উইকেটে হারের লজ্জা তো আছেই। সঙ্গে আরও এক লজ্জার নজির গড়ল বাংলাদেশ। দ্রুততম ১০০টি টেস্ট হারের নজির গড়লেন শাকিব আল হাসানরা।

অধিনায়ক পরিবর্তন প্রভাব ফেলল না মাঠের ফলাফলে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছেও ০-২ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ হারল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে পরাজয় টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের শততম হার। মাত্র ১৩৪টি টেস্ট খেলেই শততম পরাজয়ের স্বাদ পেলেন শাকিবরা।

১৩৪ টেস্টের মধ্যে মাত্র ১৬টি টেস্টে জয় পেয়েছেন তাঁরা। অমীমাংসিত ভাবে শেষ হয়েছে ১৮টি টেস্ট। উল্লেখ্য, ২২ বছর আগে টেস্ট খেলার অনুমতি পায় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের আগে সব থেকে কম টেস্ট খেলে শততম হারের নজির ছিল নিউজিল্যান্ডের। কিউয়িরা তাদের ২৪১তম টেস্ট ম্যাচে শততম পরাজয়ের স্বাদ পায়। তার আগে অবশ্য ৩৩টি টেস্ট জিতেছিল নিউজিল্যান্ড। তাদের পরে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। ভারত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্রটি ২৬৬তম টেস্টে খেলে ১০০টি ম্যাচ হেরেছিল। টেস্ট খেলতে শুরু করার ৩৫ বছর পর শততম টেস্ট হেরেছিল শ্রীলঙ্কা।

দক্ষিণ আফ্রিকা শততম হারের স্বাদ পেয়েছিল তাদের ২৭৯তম টেস্টে। তার আগে ৯০টি টেস্টে জয় পায় তারা। ভারত শততম ম্যাচটি হেরেছিল ৩০৩তম টেস্টে। ইংল্যান্ড ৩৪৭তম টেস্টে, পাকিস্তান ৩৫৭তম টেস্টে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩৬৮তম টেস্টে এবং অস্ট্রেলিয়া ৩৭৪তম টেস্টে শততম ম্যাচ হেরেছিল।

শততম পরাজয়ের আগে ভারত ৫৭টি, পাকিস্তান ১০৭টি এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৩৮টি ম্যাচে জয় পায়। অস্ট্রেলিয়া ১৭০টি এবং ইংল্যান্ড ১৩৯টি টেস্ট জিতেছিল শততম হারের আগে।

সুত্রঃ Anandabazar Patrika

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*