চলন্ত ট্রেন থামিয়ে দুই চালককে পেটাল মোটরসাইকেল আরোহীরা,

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চলন্ত ট্রেন থামিয়ে দুই চালককে পেটানোর ঘটনায় ঢাকার সঙ্গে চট্টগ্রাম ও সিলেটের ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ সময় তাদেরকে উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

শনিবার (২৯ মে) বিকেল ৩টা থেকে ডাউন লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আহতরা হলেন, জসিম উদ্দিন (৪০)ও আনোয়ার হোসেন (৪৫)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার (২৯ মে) বিকেল ৩টার দিকে ঢাকা থেকে আসা চট্টগ্রামগামী একটি মালবাহী ট্রেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন-সংলগ্ন লেভেলক্রসিং অতিক্রম করার সময় একটি মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এ কারণে মোটরসাইকেল আরোহীরা রেললাইনের পাশে ছিটকে পড়েন। এ সময় ট্রেনচালক ট্রেন থামিয়ে দেন।

তারা আরও জানান, পরে মোটরসাইকেল আরোহীরা ট্রেনের চালক আনোয়ার ও সহকারী চালক জসিমকে ট্রেন থেকে নামিয়ে মারধর করেন। এ ঘটনার পর থেকে ট্রেনটি ক্রসিংয়ে আটকা পড়ে আছে। ফলে ডাউন লাইনে ঢাকার সঙ্গে চট্টগ্রাম ও সিলেটের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন পুলিশ ফাঁড়ির ইসচার্জ এসআই মো. সালাউদ্দিন খাঁন জানান, বেশ কয়েক দিন ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনের সিগনালিং ব্যবস্থা নষ্ট হয়ে আছে। সেজন্য এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। স্টেশন-সংলগ্ন লেভেলক্রসিং অতিক্রম করার সময় একটি মোটরসাইকেল ট্রেনটির সঙ্গে ধাক্কা খায়। এ ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহীরা ট্রেনের দু’জন চালককে মারধর করেন।